মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

নদ-নদী

+নদ-নদী ও খাল-বিলঃ

 

শিবগঞ্জ উপজেলা দিয়ে প্রবাহিত নদীর মধ্যে রয়েছে পদ্মা, পাগলা, মহানন্দা।

 

1পদ্মা নদীঃ

বর্তমানে প্রবাহিত পদ্মানদী ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলা থেকে শিবগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ-পশ্চিম অংশে দুর্লভপুর ইউনিয়নের মনোহরপুর মৌজা দিয়ে শিবগঞ্জ তথা বাংলাদেশে প্রবেশ করে পাঁকা ও উজিরপুর হয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জসদরে প্রবেশ করেছে। পদ্মা নদীর অপর একটি ধারা পৃথকভাবে দুর্লভপুর ইউনিয়নের হাসানপুর মৌজা দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। পাঁকা ইউনিয়ন ও উজিরপুর পর্যন্ত দুটি ধারা পাশাপাশি প্রবাহিত হয়ে উজিরপুর ইউনিয়নে এসে উভয় ধারা একত্রে মিলিত হয়েসদর উপজেলায় প্রবেশ করেছে।এছাড়া মূল পদ্মা নদী ভারতের মালদহ জেলা থেকে এ উপজেলার পশ্চিম অংশে অবস্থিত মনাকষা ইউনিয়নের পারচৌকা মৌজা দিয়ে শিবগঞ্জ উপজেলায় প্রবেশ করে দুর্লভপুর, পাঁকা, উজিরপুর, ছত্রাজিতপুর ও ঘোড়াপাখিয়া ইউনিয়নের উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়ে নবাবগঞ্জ সদরউপজেলায় প্রবেশ করেছে। বর্তমানে এটি মরা গঙ্গানদী নামে পরিচিত। এর প্রবাহ বর্তমানে তেমন পরিলক্ষিত হয়না। পদ্মা নদী প্রবাহের গতিপথ পরিবর্তনের ফলে শিবগঞ্জ উপজেলার পাঁকা, উজিরপুর, ঘোড়াপাখিয়া ও দুর্লভপুর ইউনিয়ন নদী ভাঙ্গন কবলিত। বর্তমান পাঁকা ও উজিরপুর ইউনিয়নের অধিকাংশ এলাকা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।

 

1পাগলা নদীঃ

 

শিবগঞ্জ উপজেলার এক সময়ের স্রোতস্বিনী হিসেবে পাগলা নদীর নাম এখন ও শোনা যায়। তবে বর্তমানে নদীটিরপ্রবাহ অত্যন্ত ক্ষ্মীণ। পাগলা নদী ভারতের মালদহ জেলা থেকে শিবগঞ্জ উপজেলার উত্তর-পশ্চিম অংশে শাহবাজপুর ইউনিয়নের নামোচাকপাড়া মৌজা দিয়ে শিবগঞ্জ তথা বাংলাদেশে প্রবেশ করে। অতপরঃ তা শাহাবাজপুর, বিনোদপুর, শ্যামপুরের মধ্য দিয়ে কানসাট ও দুর্লভপুর ইউনিয়নের পাশ ঘেঁষে ছত্রাজিতপুর উজিরপুরের সন্নিকটে তরতীপুর নামক স্থানের পাশে মরা পদ্মানদীর সঙ্গে মিলিত হয়। এ মিলিত সম্মিলিত স্রোতধারা পাগলানদী নামে ছত্রাজিতপুর ও ঘোড়াপাখিয়া ইউনিয়নের মধ্য দিয়ে নবাবগঞ্জ সদর উপজেলায় প্রবেশ করেছে।

 

1মহানন্দা নদীঃ

 

মহানন্দা চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার অন্যতম নদী হলেও শিবগঞ্জ উপজেলায় এ নদীর আয়তন কম। এ নদী গোমস্তাপুর উপজেলা হতে চককীর্তি ইউনিয়নের রানীবাড়ী ও পূর্ব চাঁদপুর মৌজার মধ্য দিয়ে শিবগঞ্জ উপজেলায় প্রবেশ করে চককীর্তি ও ধাইনগর ইউনিয়নের তথা শিবগঞ্জ উপজেলার পূর্ব সিমানা ঘেঁষে প্রবাহিত হয়ে ধাইনগর ইউনিয়নের জাবড়ী কাজীপাড়ায় গিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলায় প্রবেশ করেছে।

 

1বারো মাসী খালঃ

 

ভোলাহাট উপজেলা থেকে বারোমাসী খাল শিবগঞ্জ উপজেলার দাইপুকুরিয়া ইউনিয়নের কর্ণখালী মৌজা দিয়ে শিবগঞ্জ উপজেলায় প্রবেশ করে উপজেলার উত্তর পূর্বসীমানা ঘেঁষে দাইপুকুরিয়া ও মোবারকপুর ইউনিয়নের উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়ে কানসাট বাজারের নিকটে এসে পাগলা নদীর সঙ্গে মিলিত হয়েছে।

 

1বিলঃ

 

শিবগঞ্জ উপজেলার উল্লেখযোগ্য বিলের মধ্যে রয়েছে কুমারদহ বিল, গোরালী বিল ও বিল ভাতিয়া। এ সমস্ত বিলে সারা বছর পানি থাকায় প্রচুর মাছ পাওয়া যায়। বর্তমানে এখানে বানিজ্যিকভাবে মাছ চাষ করা হচ্ছে।